বইমেলার দারুণ কিছু বই যা চোখে পড়ে নি অনেকেরই !

78

873

বইমেলার দারুণ কিছু বই যা চোখে পড়ে নি অনেকেরই !

  • 0
  • #অন্যান্য
  • Author: rokomari
  • Share

এবারের বইমেলা তে রকমারি বেস্টসেলার নিয়ে আলোচনা ছিল তুঙ্গে। কিন্তু বেশি পাঠক যা কিনবেন সেটিই বেস্টসেলারে আসবে, এটাই নিয়ম। টকিং বেশি তৈরি করছে যে বইগুলো, যে বইগুলো নিয়ে আলোচনা-সমালোচনা বেশি হচ্ছে সেগুলোই পাঠক সংগ্রহ করতে ইচ্ছুক হচ্ছে। বইয়ের সাবজেক্টের ক্ষেত্রে একেকটা টপিক একেক সময় পাঠকদের চাহিদার শীর্ষে উঠে যায়। কখনো তা ফিকশন তো কখনো মোটিভেশন। যেসব বইগুলো আলোচনা হয় সেগুলো নিয়ে তো আলোচনা চলবেই, কিন্তু কিছু বই আছে যেগুলো নিয়ে আলোচনা অনলাইনে তুলনামূলক কম কিন্তু যে পাঠকই পড়ছেন তারা মুগ্ধ হয়ে যাচ্ছেন। হয়তো এই মুগ্ধ পাঠকরা বইগুলো নিয়ে কথা বলছেন না, হয়তো আমাদের প্রোমোশনেও অন্তরালে চলে যায় বইগুলো। কিন্তু এই বইগুলো নিয়ে, এই মুগ্ধতাগুলো নিয়ে কথা বলতে হবে। চলুন পাঠক দেখে আসা যাক, এই বইমেলার কিছু দারুণ বই।

বইমেলা

মামলার সাক্ষী ময়না পাখি

শাহাদুজ্জামান

শাহাদুজ্জামান বর্তমান সময়ের অন্যতম শক্তিমান লেখক। তাঁর ছোট গল্পে খুব সহজেই ডুবে যাওয়া যায়। স্বাদ পাওয়া যায় জাদু বাস্তবতার, স্বাদ পাওয়া যায় আবেগের। যে আবেগ মৃত্যুপথযাত্রী এখনকার জড় পৃথিবীতে। মামলার সাক্ষী ময়না পাখি বইতে আছে বেশ কয়েকটি ছোট গল্প। যে গল্পগুলো কখনো কখনো পাঠককে বোবায় ধরিয়ে দেয়, কখনো চোখ দিয়ে টুপ করে বইয়ের পাতায় গড়িয়ে পড়ে এক ফোঁটা জল, কখনো ব্যতিক্রমী হাস্যরসে মুচকি হাসি এনে দেয়। বিশেষ করে মামলার সাক্ষী ময়না পাখি নাম গল্পটি সার্থক ছোটগল্প হিসেবে দারুণভাবে পাঠককে নাড়া দিতে সক্ষম। মৃত্যু সম্পর্কে আমার অবস্থান খুব পরিষ্কার গল্পটি প্রিয়জন হারানো মানুষদের পড়ে শেষ করতেই কষ্ট হয়ে যাবে। শাহাদুজ্জামান কখনো আবেগকে একদম নিংড়ে দিয়েছেন গল্পে আবার কখনো বড় বড় দুর্ঘটনা, বিপদ, কষ্টকেও গড়গড় করে বলে গিয়েছেন।

আপনার বইসংগ্রহে দারুণ সংগ্রহ হতে পারে মামলার সাক্ষী ময়না পাখি বইটি।

বইমেলা পথে আলো জ্বেলে

এই পথে আলো জ্বেলে

 আনিসুল হক 

আনিসুল হকের লেখনী শক্তির পুরোটা আন্দাজ করা যায় তাঁর ‘যারা ভোর এনেছিল’ সিরিজ দিয়ে। এই সিরিজে লেখক বাংলাদেশের অভ্যুত্থানের পুরো ইতিহাস তুলে ধরেছেন শেখ মুজিবের হাত ধরে। একে একে লিখেছেন যারা ভোর এনেছিল,ঊষার দুয়ারেআলো-আঁধারের যাত্রী। তারই পরিক্রমায় এই বইমেলা তে আনিসুল হক লিখেছেন এই পথে আলো জ্বেলে। বইয়ের কিছু অংশ পড়া যাক চলুন- বেগম মুজিব দাওয়াত করেছেন কয়েকজনকে। কিশোর কামাল সেতার বাজিয়ে শোনাল। শেখ মুজিব গান ধরলেন, ভাটিয়ালি গান। ধানমন্ডির বাসায় বসে কামরুদ্দীন আহমদ সে-স্মৃতি চারণ করছেন যখন, তখন শেখ মুজিব কারাগারে। ছয় দফা দেওয়ার পর আইয়ুব খান তাঁকে একটার পর একটা মামলা দিয়ে বন্দী করে রেখেছে। কিন্তু দেশের মানুষ রক্তের দামে ছয় দফা দাবিকে অপরিহার্য করে তুলছে।

সংগ্রহ করুন এই পথে আলো জ্বেলে

এক এগারো

এক এগারো

মহিউদ্দিন আহমেদ

মহিউদ্দিন আহমেদ যেভাবে বাংলাদেশের রাজনৈতিক ইতিহাস তুলে ধরেছেন তেমন সফলভাবে রাজনীতিকে বইয়ের পাতায় তুলে আনতে পেরেছেন খুব কম মানুষই। তাঁর নতুন বই ‘এক এগারো’তে তাই উঠে এসেছে বাংলাদেশের রাজনীতির অন্যতম গতিবদলকারী ঘটনার ভেতর-বাহির। ১১ জানুয়ারির পালাবদলের ক্ষণটির নাম হলো ওয়ান-ইলাভেন বা ‘এক এগারো’। প্রশ্ন হল – এই সেনা হস্তক্ষেপ কি বিরাজমান রাজনৈতিক সংকটের অনিবার্য পরিণতি, নাকি এর পেছনে ছিলো অনেক দিনের পরিকল্পনা? কর্তৃত্ববাদী রাজনীতির অভ্যন্তরীণ দ্বন্দ্বের প্রতিক্রিয়া, নাকি ষড়যন্ত্র?

লেখকের অনুসন্ধানী গবেষণায় ঐ সময়ের একটি সুরতহালের চেষ্টা করা হয়েছে এই বইয়ে। সংগ্রহ করুন আজই এক এগারো

পদতলে চমকায় মাটি

পদতলে চমকায় মাটি

সুহান রিজওয়ান

তরুণ ঔপন্যাসিক হিসেবে সুহান রিজওয়ান নিজেকে পোক্ত একটা অবস্থান দিয়েছিলেন ‘সাক্ষী ছিল শিরস্ত্রাণ’ বইটির মাধ্যমেই। তাঁর লেখনীর গভীরতা, জীবনবোধ ও রূপকময়তা মুগ্ধ করেছে পাঠককে বারংবার। লেখকের নতুন বই ‘পদতলে চমকায় মাটি’ নামের মতোই পরাবাস্তব এক পৃথিবীর গল্প বলে। একবিংশ শতাব্দীর ঘুণে ধরা কিছু যুবক। ইতিহাসের ক্রমাগত ট্যাকলের বিপরীতে খেলে যাওয়া তরুন এক ফুটবলার। ক্ষ্যাপাটে এক ফুটবল কোচ। একটি পাহাড়ঘেরা জনপদ, পরাবাস্তবের চেয়েও নাটকীয়তায় পূর্ণ যার ইতিহাস এবং বর্তমান। উপন্যাস “পদতলে চমকায় মাটি” , ধরতে চেয়েছে এই চতুষ্কোণ।

সংগ্রহ করুন পদতলে চমকায় মাটি

সুখলতার ঘর নেই

সুখলতার ঘর নেই

হরিশঙ্কর জলদাস

হরিশঙ্কর জলদাস বর্তমান বাংলা সাহিত্যের নদীতে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ মাছ। জেলেপল্লীতে জন্ম ও বড় হওয়া জলদাস তাঁর নামকে সার্থক করে সে জেলেজীবনের গল্পই লেখা শুরু করেন জীবনের মধ্যভাগে এসে। এতোদিন মৎস্যজীবীদের গল্প শোনাতেন, এবার তাঁর নতুন বই ‘সুখলতার ঘর নেই’তে শুনিয়েছেন মৎস্যজীবনের গল্প। পাঙাশ রতিকান্তের সঙ্গে ইলিশিনী সুখলতার গভীর প্রেম। খেপে ওঠে ঘোঁওড়া মোড়ল পঞ্চানন ওরফে পঞ্চু সরদার। কিন্তু জগাই কেন সুখলতাকে অপহরণ করল? সোমনাথ ইলিশ কন্যার লুণ্ঠনের পর কী করল? মাছেদের মধ্যে যুদ্ধ অবশ্যম্ভাবী হয়ে উঠল কেন? যুদ্ধে কার জয় হলো? যার জন্য যুদ্ধ, সেই সুখলতা কি ফিরে পেল দাম্পত্যজীবনের গৃহকোণটি?

মাছজীবনের গল্প শুনতে সংগ্রহ করুন সুখলতার ঘর নেই

আরও পরুনঃ 

বইমেলা ২০১৯ এ মুহম্মদ জাফর ইকবালের বেস্টসেলার ৫টি বই

বইমেলা ২০১৯- সাড়াজাগানো ১০ টি বই

Write a Comment