মানসিক চাপ থেকে মুক্তির ৫টি কার্যকরি উপায়

মানসিক চাপ থেকে মুক্তির উপায়

সারাদিনের কাজ শেষে সোফায় গা এলিয়ে শুয়ে টিভি দেখার মধ্যে স্বস্তি আছে কিন্তু শান্তিটা ঠিক পাওয়া যায় না। টিভির পর্দায় দেখানো নাটক, সিনেমা, খেলার প্রোগ্রাম ও খবর সবকিছুই বরং মানসিক চাপ বাড়িয়ে দিচ্ছে। অনেকটা একইরকম কাজ করে আমাদের স্মার্টফোন। যেহেতু সরাসরি কোন এক্টিভিটি থাকেনা তাই চাপমুক্ত করার বদলে আসক্ত করে দেয়। তাই এসব বাদ দিয়ে ঘরে বসে বেছে নিতে পারেন এমন কিছু উপায় যা আপনাকে সত্যিই শান্তি দিতে পারে, করতে পারে চাপমুক্ত।  এর মধ্যে ভালো বইপড়া অন্যতম একটি উপায় হতে পারে।  দেখে নিন ৫ টি মানসিক চাপ থেকে মুক্তির উপায় যা আসলেই কাজ করবে…

মানসিক চাপ থেকে মুক্তির উপায় 1
একজন মানুষ যখন অন্য একজনের কথা শুনতে শুরু করেন তখন তার রক্তচাপ কমে আসতে শুরু করে।  ছবিঃ প্রতীকী

১.  বলার চেয়ে শুনুন বেশি

যখন কেউ অন্য একজন মানুষের সাথে সম্পৃক্ত থাকে তখন তার মস্তিষ্কের ডোপামিন এবং অক্সিটসিন এর মত ভালো রাসায়নিক পদার্থগুলো নির্গত হয়। এবং The Maryl বিশ্ববিদ্যালয়ের মনোরোগ বিদ্যার প্রফেসর Dr. James Lynch এর মতে একজন মানুষ যখন অন্য একজনের কথা শুনতে শুরু করেন তখন তার রক্তচাপ কমে আসতে শুরু করে।

মানসিক চাপ থেকে মুক্তির উপায় ২
গভীর শ্বাস-প্রশ্বাস আমাদের শরীরের বাড়তি চাপমুক্ত করতে সাহায্য করে।  ছবিঃ প্রতীকী

২.  গভীর নিঃশ্বাস নিন

হার্ভার্ড মেডিকেল স্কুল এর মেডিসিন প্রফেসর Dr. Herbert Benson বলেন গভীর শ্বাস-প্রশ্বাস আমাদের শরীরের বাড়তি চাপমুক্ত করতে সাহায্য করে। তাই যে কোন রিলাক্সেশন প্রসেসের প্রথম ধাপ শুরু হয় ৩ বার গভীর নিঃশ্বাস নেয়ার মাধ্যমে।

মেডিটেশন
মেডিটেশন এমিগডালা গ্রন্থি যা মূলত মানসিক চাপ তৈরিতে সাহায্য করে তা সঙ্কুচিত করে দেয়।  ছবিঃ প্রতীকী

৩.  মেডিটেশন

হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের Dr. Sara Lazar এর গবেষণায় তৈরি নতুন এক রিসার্চ পেপারে উঠে এসেছে একজন মানুষ যদি শুধু ৮ সপ্তাহ নিয়মিত মেডিটেশন করেন তবে তাঁর মস্তিষ্কের এমিগডালা গ্রন্থি যা মূলত মানসিক চাপ তৈরিতে সাহায্য করে তা সঙ্কুচিত করে দেয়।

প্রিয় বন্ধুদের সান্নিধ্য
প্রিয় বন্ধুদের আড্ডা ‘উচ্চ রক্তচাপ, হৃদরোগ এবং কগনেটিভ ডেকলাইন এর মত বড় রোগগুলো প্রতিরোধ করতে সাহায্য করে।  ছবিঃ প্রতীকী

৪. প্রিয় বন্ধুদের সান্নিধ্য

আমেরিকান সাইকোলজিকাল এসোসিয়েশনের মতে ‘জীবনের সমস্যাগুলো মোকাবেলার জন্য ইমোশনাল সাপোর্ট একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়’। আরও বলা হয় ‘উচ্চ রক্তচাপ, রোগ-প্রতিরোধে অক্ষমতা, হৃদরোগ এবং কগনেটিভ ডেকলাইন এর মত বড় রোগগুলোর জন্য একাকিত্বই দায়ী’। তাই প্রিয় বন্ধুদের ডেকে নিন এখনই। একাকিত্ব কাটিয়ে ভালো থাকুন।

বিকেলের একটু বিরতি
সারাদিনের কর্মব্যস্ত সময়ের মাঝে শেষ বিকেলের দিকে কিছুটা কর্ম বিরতি দূর করতে পারে ক্লান্তি।  ছবিঃ প্রতীকী

৫.  বিকেলের একটু বিরতি

Mayo Clinic এর মতে সারাদিনের কর্মব্যস্ত সময়ের মাঝে শেষ বিকেলের দিকে কিছুটা কর্ম বিরতি দূর করতে পারে ক্লান্তি। সে বিরতিতে চাইলে একচোট আড্ডা হতে পারে বা এক কাপ চা এর সাথে শুধুই নিজেকে সময় দেয়া যেতে পারে। যেভাবে আপনার ভালো লাগে।

আত্ম-উন্নয়ন, মোটিভেশনাল ও মেডিটেশন এর যে বই গুলো পড়তে পারেন ।

আরও দেখুন… 

তাহলে আজ থেকেই অভ্যাস করুন মানসিক চাপ থেকে মুক্তির উপায় গুলো এবং নিজের stress কে DE-stress এ পরিণত করুন আর খুব ভালো থাকুন।  আপনি ভালো থাকলেই যে ভালো থাকবে কাছের মানুষগুলো…


তথ্যসূত্র – James Porter এর ব্লগ থেকে অনূদিত

 

আরও পড়ুনঃ 

ব্যবসায় টিম পরিচালনার ক্ষেত্রে কীভাবে চাপ নিয়ন্ত্রণে রাখবেন

ব্যবসা শুরুর আগে উদ্যোক্তাদের অবশ্যপাঠ্য ৭ টি বই

ব্যর্থতার সঙ্গে লড়তে উদ্যোক্তাদের ১০ কৌশল

অমুসলিম লেখকদের ইসলাম নিয়ে যে ৪টি বই আপনাকে চমকে দেবে

জীবনের দৃষ্টিভঙ্গি বদলে দেয়ার মত ১০ জনের জীবনী

comments (0)

Leave a Comment

Rokomari-blog-Logo.png