বইবন্ধু-৩

0
612

* প্রিয় বইবন্ধু, আমি রেহনুমা। আমার স্বপ্ন একটাই আমি চলচ্চিত্র পরিচালক হতে চাই।  এই ভূতটা আমার মাথায় একদিনে চাপেনি, মোটামুটি বেশ সময় নিয়েই চেপেছে। সত্যজিৎ রায়,  ঋতুপর্ণ ঘোষ, জহির রায়হান, তারেক মাসুদ,  মোস্তফা সারোয়ার ফারুকী,   রেদওয়ান রনি আমার প্রিয় পরিচালক। এখন আমি জানি যে আমি বড় হয়ে ঠিক এটাই করতে চাই। আমার পরিবারের দু একজনকে আমার এই স্বপ্নটার কথা বললেও তারা কেউই খুব একটা পাত্তা দেয় নি। তবে আমি নিজের যোগ্যতা প্রমাণ করতে পারলে মনে হয় না কেউ খুব একটা আপত্তি করবে। কিন্তু তার জন্যে আমার জানতে হবে শুরুটা কোথা থেকে করব। প্লিজ একটুখানি সমাধান বলে দাও।

বইবন্ধুঃ  বন্ধু রেহনুমা তুমি কি জানো মানুষ তার স্বপ্ন সমান বড়! তোমার এই স্বপ্নের বিশালতা একদিন আকাশ ছোঁবে যদি তুমি লেগে থাকতে পারো। আর প্রাথমিক কাজ হিসেবে যেটা করতে পারো সেটা হচ্ছে প্রচুর প্রচুর চলচ্চিত্র দেখতে পারো। শুধু এক দেশের বা এক সংস্কৃতির চলচ্চিত্র দেখলেই হবে না কিন্তু। ভিন্ন ভিন্ন দেশের, ভিন্ন ভিন্ন সংস্কৃতির চলচ্চিত্র দেখতে হবে তোমাকে। তাহলে তুমি বুঝতে পারবে চলচ্চিত্র এমন একটি শিল্প মাধ্যম যা দিয়ে প্রকাশ করা যায় ব্যক্তিমানসকে, যার মাঝে ধারন করা যায় বাস্তব ও অবাস্তব উভয়ই। তুমি সফল হও তোমার স্বপ্নপূরণে এই আমাদের আকাঙ্ক্ষা কিন্তু পাশাপাশি পড়াশুনার প্রতিও মনোযোগ হারাবে না এই আশাই করছি। তোমার জন্য পাঠিয়ে দিচ্ছি সত্যজিৎ রায়ের বই- বিষয় চলচ্চিত্র। বইটি তোমাকে আলোকিত করুক।

* প্রিয় বইবন্ধু…আমি আয়েশা। আমার পছন্দের বিষয় হচ্ছে বিজ্ঞান। আমি বড় হয়ে একজন ভাল রোবট বিজ্ঞানী হতে চাই। কিন্তু আমার কাছের সবাই চায় আমি একজন ভালো চিকিৎসক হই। কারণ তারা মনে করে যে চিকিৎসকরাই সবচেয়ে ভালোভাবে দেশের সেবা করতে পারে। আমি সবাইকে যতই যুক্তি দেখাই সবাই ততই আমার ওপর জেঁকে বসে। বইবন্ধু তুমি শুনে খুশি হবে যে আমি মোটামুটিভাবে রোবটের অ আ ক খ জ্ঞান সম্পর্কে ধারণা লাভ করেছি। জানি না সফল হবো কিনা তবে আমি ভবিষ্যতে রোবট বিজ্ঞানের ওপর আরও পড়াশুনা করতে চাই। এখন আমি কি করবো বইবন্ধু?

বই বন্ধুঃ বন্ধু আয়েশা জানোই তো আমাদের দেশে প্রথাবিরুদ্ধ যেকোনো কাজে বাঁধা আসবেই। যে কিশোর ছেলেটি ছোটবেলায় নাসার বিজ্ঞানী হতে চাইতো সে দেখা যায় তরুন বয়সে ব্যাংকের অফিসার, যে কিশোরী সুরেলা কণ্ঠে গান গেয়ে শ্রোতাদের মুগ্ধ করতে চাইতো সে এখন হেঁশেলে গুনগুণ করে গান গেয়ে ফেরে। তুমি যে নিজের পছন্দের কাজই ভবিষ্যতে করতে চাও সেটা জেনে খুব ভালো লাগলো। তবে তার আগে তোমার দায়িত্ব হচ্ছে তোমার কাছের মানুষদের এটা বোঝানো যে দেশের সেবা করতে চাইলে চিকিৎসা সেবা বাদেও আরও অনেক কিছু করা যায়। তুমি রোবটিক্স নিয়ে কাজ করতে চাও যেহেতু সেহেতু তোমাকে এই বিষয় নিয়ে আরও অনেক পড়াশুনা করতে হবে। তোমাকে কল্পনাপ্রবণ হতে হবে। তোমার এই কল্পনাবিলাসে সুবিধার জন্য আইজাক আসিমভের “আই রোবট” বইটি আমরা পাঠিয়ে দিচ্ছি। আশা করি তুমি দেশের নাম ও তোমার পরিবারের নাম রোবটবিজ্ঞানে তোমার সফলতার মাধ্যমে আরও উজ্জ্বল করবে।

LEAVE A REPLY