জীবনের মুশকিল আসানে ওয়ান মিনিট ফর্মুলা সিরিজ

90003075_2535250826576842_465909556824768512_n

আজকালকার ইনস্ট্যান্ট জমানায় সবকিছুই খুব ইনস্ট্যান্ট আর জলদি পেয়ে যাবার তাড়া থাকে আমাদের। নাগরিক জীবনের যান্ত্রিকতার পার্শ্ব-প্রতিক্রিয়া হিসেবে এই তাড়াহুড়োর জীবনকে আমরা বেশ মেনেও নিয়েছি। দুই মিনিটের ম্যাগি নুডুলসের মতোই এবার আপনাদের কাছে হাজির করা হবে এক মিনিটের এক মজাদার বইয়ের সিরিজ, যার নাম ‘দ্য ওয়ান মিনিট ফর্মূলা সিরিজ’। সিরিজটিতে রয়েছে পাঁচটি বই, যাতে বিভিন্ন পেশা ও অবস্থানের লোকেদের নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে। সিরিজটি রচনা করেছেন লেখক কেনেথ ব্লেনচার্ড ও স্পেনসার জনসন। অনুবাদে রয়েছেন মোহাম্মদ আবদুল লতিফ। সিরিজটি প্রকাশ করেছে রকমারি। আলাদা আলাদা ওয়ান মিনিট ফর্মুলা সিরিজ এর বইগুলো সম্পর্কে চলুন জেনে নেয়া যাক।

BUY NOW

ওয়ান মিনিট ম্যানেজার মিট দ্য মাংকি

আপনি যদি কোনো প্রতিষ্ঠানের ম্যানেজার পদে থেকে থাকেন, তবে আপনি অবশ্যই জানেন কাজের চাপ আর অধীনস্থদের একসাথে ম্যানেজ করতে প্রতিদিন আপনার কী পরিমাণ ঝক্কি পোহাতে হয়। ওয়ান মিনিট ম্যানেজার মিট দ্য মাংকি বইটিতে কাজের অতিরিক্ত চাপকে বাঁদরের সাথে তুলনা করা হয়েছে এবং সেই বাঁদর আপনার ঘাড়ে চেপে বসলে ঠিক কীভাবে মুক্তি পাওয়া যায়, সেই পথই বাতলানোর চেষ্টা করা হয়েছে। শুধু নিজের একার নয়, অধীনস্থ সকলের কাজের বাঁদরও যদি আপনার উপর উড়ে এসে জুড়ে বসে যায়, তবে আপনি কী করবেন, তার কিছুটা ধারণা আপনি এ বই থেকে নিতে পারবেন। আপনার কর্মজীবনকে কিছুটা হলেও ভারমুক্ত করবার কৌশল নিয়ে বইটি লেখা হয়েছে। বইটি পড়ার পর আপনি বুঝতে পারবেন এমন দুষ্ট কোনো বাঁদরের সাথে ম্যানেজার আপনার দেখা হয়ে গেলে আপনি ঠিক কীভাবে সামাল দেবেন! বিস্তারিত জানতে বইটি পড়তে পারেন। বইটি সংগ্রহের জন্য এখানে ক্লিক করুন

BUY NOW

দি ওয়ান মিনিট ম্যানেজার

দি ওয়ান মিনিট ম্যানেজার বইটিতে আপনি তিনটি ধাপের কথা জানতে পারবেন। ধাপগুলো ম্যানেজমেন্ট দক্ষতা বৃদ্ধির পথে আপনার সহায়ক হবে এবং এর ব্যবহারিক প্রয়োগের মাধ্যমে আপনার কর্মজীবন আরো অনেকটাই প্রোডাক্টিভ হয়ে উঠবে। বইটি ইতোমধ্যেই অনেক সাড়া ফেলেছে। পিপল ম্যাগাজিনেও বইটি নিয়ে বেশ লেখালেখি হয়েছে।
এই বইতে এই কাজটা করতে তিনটি পদ্ধতি তুলে ধরা হয়েছে।
১. ওয়ান মিনিট গোলঃ এটি হল আপনার লক্ষ্য নির্দিষ্ট করা। এটি এমন ভাবে লিখুন যেন ১ মিনিটের মধ্যে পড়ে ফেলতে পারেন।
২. ওয়ান মিনিট প্রেইজিংঃ আমরা সাধারনত কাজ দিয়ে চুপ করে বসে থাকি যে, সে কখন ভুল করবে। তখন ধরবো। ফলে বেশিরভাগ কর্মী ভয়ে থাকে কখন না কি ভুল হয়ে যায়। সঠিক হচ্ছে কিনা? ভুল হচ্ছে কিনা? ভুল করার ভয়ে কম কম কাজ করতে থাকে। যত কম কাজ তত কম ভুল। তা থেকে বাচতে এই পদ্ধতি।
৩. ওয়ান মিনিট রিপ্রিমেন্ডঃ এটাও সেরকমই। যে আমরা ভুল ধরে ধরে অপেক্ষা করি। কখন মাস আসবে, আর ভুল ধরে থুবড়ি ফেলায় দিব। তা যেমন শোধরানোর পর্যায়ে থাকেনা, সঠিকভাবে বুঝতে না পেরে কর্মীরা এটাকে অনেকটা ব্যাক্তিগত ভাবে নিয়ে ফেলে। যে বস আমাকে অপমান করল। রিপ্রিমেন্ড হল টাফ এন্ড নাইস সিস্টেম।
আরোও বিস্তারিত জানতে বইটি সংগ্রহ করতে পারেন এই লিঙ্ক থেকে

BUY NOW

দি ওয়ান মিনিট টিচার

আমাদের সবার জীবনেই এমন একজন শিক্ষক থাকেন, যার বিশেষ কোনো উপদেশবাক্য আমরা জীবনের চলার পথে বারবার প্রয়োগ করে থাকি। এমন বিশেষ শিক্ষকের কথা জীবনের প্রতিটি ধাপেই আমাদেরকে সফল হতে এবং ব্যর্থতার সাথে মোকাবেলা করতে সাহায্য করে থাকে। ঠিক এমনই শিক্ষকের কথা নিয়ে লেখা দি ওয়ান মিনিট টিচার বইটি। এই বইতে মূলত ৩ টি বিষয় উঠে এসেছে, যা অনেকটাই ওয়ান মিনিট ম্যানেজারের মতই।
১. one minute goal
২. one minute praise
৩. one minute recovery
কীভাবে আপনিও হয়ে উঠতে পারেন কারো জীবনের বিশেষ ‘ওয়ান মিনিট টিচার’? এর উত্তর পাবার জন্য বইটি পড়তেই হবে। বইটির কিছু অংশ পড়ুন এখানে

BUY NOW

দি ওয়ান মিনিট মাদার 

একজন নারীর জীবনে মাতৃত্ব সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে দেখা দেয়, এতে সন্দেহের কোনো অবকাশ নেই। এই চ্যালেঞ্জ যেন প্রথম সন্তানের ক্ষেত্রে আরো অনেক বেশি কষ্টসাধ্য। মা হবার সহজাত কিছু প্রবৃত্তির মাধ্যমে তিনি তাঁর সন্তানের জন্য সর্বশ্রেষ্ঠ পদক্ষেপটিই নিয়ে থাকেন, তবে একজন মায়েরও দরকার সঠিক দিকনির্দেশনা; যে দিকনির্দেশনা তাঁকে মাতৃত্বের সফরে সর্বক্ষণ সহায়তা করে যাবে। দি ওয়ান মিনিট মাদার বইটি লেখা হয়েছে মায়েদের সন্তান লালন-পালন নিয়ে সরল ও অত্যন্ত ফলপ্রসূ পদ্ধতি নিয়ে। আপনার মনে কখনো যদি প্রশ্ন জেগে থাকে, ‘সন্তানকে আদর করব না শাসন করব?’- তবে এ বইটি আপনার জন্য অবশ্যপাঠ্য। 

কারন, বাচ্চাকে আদর করতে গেলেই হয়তো আত্মীয় কিংবা পড়শীদের কথা শুনতে হয়। “আদর দিয়ে দিয়েই বাচ্চাটার মাথা খেয়েছো” আবার শাসন করতে গেলেই হয়তো কেউ বলে উঠে “এতো নিষ্ঠুর মা-বাপ কি আর আছে”  তবে, এটা শুধু আত্মীয় অথবা পড়শীদের কথা না, এই দ্বন্দ্বটা আমাদের প্রত্যকের। কেননা আমরা কেউ না কেউ কারো না কারো আত্মীয় কিংবা পড়শী।  এই দ্বন্দ্বের অবসানে এই বইটি কার্যকর ভূমিকা রাখবে। কারন এটা মনে রাখতে হবে যে বাচ্চার ভবিষ্যত কিন্তু বাবা-মায়ের উপরেই নির্ভর করে। হয়তো এটি আপনাকে দ্বিধা দূর করার পথে একধাপ এগিয়ে নিতে পারে। বইটির জন্য এখানে ক্লিক করুন 

BUY NOW

দি নিউ ওয়ান মিনিট ম্যানেজার

দি নিউ ওয়ান মিনিট ম্যানেজার বইটিও একজন ম্যানেজারের কর্মজীবন নিয়েই লেখা। কীভাবে কঠিন কাজগুলো সহজে সম্পন্ন করা যায়, কীভাবে নিজের সময়টাকে সর্বোচ্চ পরিমাণ কাজে লাগিয়ে নিজের এবং প্রতিষ্ঠানের জন্য সফলতা বয়ে আনা যায়- সেসব নিয়েই আলোচনা করা হয়েছে এখানে। এ বইয়েও লেখক তিনটি সাফল্যের মূলমন্ত্র, অর্থাৎ তিনটি পদ্ধতির কথা বলেছেন, যার মাধ্যমে ধাপে ধাপে এগিয়ে যাওয়া যাবে। 

১. Set “one minute” goals
২. Have “one minute” praises when things go well
৩. Have “one minute” redirects (or reprimands in the old version of the book), when things didn’t go as planned

কনফুসিয়াস বলেছিলেন “জ্ঞানের সারকথা হলো তা অর্জন এবং ব্যবহার” তাই এই পদ্ধতিগুলো প্রয়োগের মাধ্যমে নিজেকে যেমন যোগ্য করে গড়ে তুলতে পারবেন তেমনি পারবেন অণ্য মানুষের জীবনে ভ্যালু অ্যাড করতে।

80% of your really important results will come from 20% of your goals

ওয়ান মিনিট ফর্মুলা সিরিজ এর প্রতিটি বইয়ে ‘মুশকিল আসান’ করার কিছু সহজ ও কম সময়সাপেক্ষ পদ্ধতির বিবরণ দেওয়া আছে, যাতে করে আপনার জীবনের খুব বেশি সময় ব্যয় না করে সহজেই আপনি আপনার নির্দিষ্ট পেশা বা অবস্থানে থেকে আরেকটু উন্নতি করতে পারেন। শুধু কর্মজীবন বা শুধু ব্যক্তিজীবনে সীমাবদ্ধ না থেকে এই সিরিজে চেষ্টা করা হয়েছে জীবনের দুটো ভাগেরই একটা সমন্বয় ঘটাতে। একজন মা যিনি কি না তাঁর সন্তানের জন্য প্রথম শিক্ষক, আবার তিনিই হয়তো অফিসে গিয়ে পালন করছেন ম্যানেজারে দায়িত্ব। তাই সিরিজটি একই মানুষের বিভিন্ন ভূমিকা নিয়ে লেখা বললেও ভুল হবে না; আবার বিভিন্ন মানুষের বিভিন্ন ভূমিকা নিয়ে লেখা বললেও ভুল হবে না।

দেখুনঃ দ্য ওয়ান মিনিট ফর্মুলা সিরিজ এর সকল বই

*এই ব্লগটি লিখেছেন অনিন্দিতা চৌধুরী

Rokomari Editor

Rokomari Editor

Published 05 Dec 2018
Rokomari is one of the leading E-commerce book sites in bangladesh
  0      0
 

comments (0)

Leave a Comment

You May Also Like This Article

Rokomari-blog-Logo.png