ম্যানেজেরিয়াল কনসেপ্ট এবং তার আদ্যোপান্ত……

16

বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় অনলাইন বুকস্টোর রকমারি ডট কম এর আয়োজনে চলেছে সপ্তাহব্যাপী ক্যারিয়ার কার্নিভাল। ক্যারিয়ার কার্নিভালের অন্যতম আয়োজন ক্যারিয়ার ক্যাফে লাইভের সপ্তদশ পর্বে আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন bdjobs.com এবং ajkerdeal.com এর প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী ফাহিম মাশরুর, যিনি বাংলাদেশে সবচেয়ে বড় জব সাইট তৈরি করেছেন। তরুণদের এগিয়ে নিতে, স্বপ্ন পূরণ করতে তিনি সাহায্য করে যাচ্ছেন নিরন্তর। পর্বটির সঞ্চালনায় ছিলেন বাংলাদেশের অন্যতম সফল উদ্যোক্তা মাহমুদুল হাসান সোহাগ। এ পর্বে তারা আলোচনা করেছেন ম্যানেজেরিয়াল কনসেপ্ট ও এর খুঁটিনাটি সব বিষয় এবং ম্যানেজারের স্বভাব-বৈশিষ্ট্য কেমন হওয়া উচিত, সে সমস্ত বিষয় নিয়ে।

ম্যানেজেরিয়াল কনসেপ্ট কি প্রথমেই সেই প্রশ্ন আসা স্বাভাবিক। মূলত মানুষ এবং স্কিলসের সামঞ্জস্যে সংঘটিত কাজ হল ম্যানেজেরিয়াল কনসেপ্ট।

ম্যানেজারের গুরুত্ব

একটি কোম্পানিতে ম্যানেজার কতখানি অবদান রাখে তা বলার অবকাশ রাখে না। একজন ম্যানেজার যেমন তার বুদ্ধি দিয়ে কোম্পানিকে শূন্য থেকে আকাশে উঠিয়ে দিতে পারেন, তেমনি তার একটি ভুল সিদ্ধান্ত দিয়েই কোম্পানিকে আকাশ থেকে আবার শূন্যের কোঠায় নামিয়ে আনতে পারেন। কোম্পানির যাবতীয় ভালো-মন্দ ম্যানেজারের হাতেই থাকে। তাই ম্যানেজারকে হতে হবে এ্যানালাইটিকাল আ্যাবিলিটি সম্পন্ন, যাতে তিনি তার দক্ষতা দিয়ে যে কোনো সিদ্ধান্তকে যাচাই-বাছাই করতে পারেন।

ম্যানেজার হতে হলে কী কী গুণ থাকা দরকার

একজন ম্যানেজারের উপর একটা কোম্পানির অনেক দায়িত্ব থাকে। তাই তার মধ্যে বেশ কয়েকটি গুণ থাকতে হয়। ফাহিম মাশরুরের মতে, একজন ম্যানেজার হতে হলে যে যে গুণ থাকতে হয়ঃ

–           তাকে তার ডিপার্টমেন্টের কাজ সম্বলিত সমস্ত জ্ঞান রাখতে হবে। সমস্ত টেকনিক নখদর্পণে রাখতে হবে। অর্থাৎ                       তাকে অভিজ্ঞ হতে হবে।

–           তাকে শৃঙ্খলাবদ্ধ হতে হবে। কারণ ম্যানেজার নিজেই যদি শৃঙ্খল না হন তাহলে তিনি কোম্পানিকে শৃঙ্খলার মধ্যে                     রাখতে পারবেন না।

–           ম্যানেজারের মধ্যে জবাবদিহিতার মানসিকতা থাকতে হবে।

–           সময় ম্যানেজমেন্টে তাকে পটু হতে হবে।

–           তাকে ভিশনারি হতে হবে।

–           স্বজনপ্রীতি, দুর্নীতিসহ প্রভৃতি খারাপ কাজ থেকে বিরত থাকতে হবে।

ম্যানেজারদের যে যে চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন হতে হয়

প্রতিটা পেশাতেই কিছু না কিছু চ্যালেঞ্জ থাকে। ম্যানেজাররাও তার ব্যতিক্রম নয়। তাদেরও বিভিন্ন প্রতিকূলতার সম্মুখীন হতে হয়। ফাহিম মাশরুরের মতে, প্রতিটা ম্যানেজারেরই তার কর্মীদের উপর বিশ্বাস স্থাপন করতে সময় লাগে। আর এটাই তাদের সব থেকে বড় চ্যালেঞ্জ। কারণ কিছু গুরুত্বপূর্ণ কাজ বিশ্বস্ত মানুষ দিয়েই করাতে হয়। তখন ম্যানেজারকে অনেক পুঙ্খানুপুঙ্খ হিসেব করে কর্মচারীদের মধ্যে কাজ বণ্টন করে দিতে হয়। এছাড়াও প্রতিযোগিতার বাজারে টিকে থাকার জন্য একজন ম্যানেজারকে অবশ্যই সৃজনশীল বুদ্ধিমত্তার অধিকারী হতে হবে।

ম্যানেজেরিয়াল স্টাইল

ম্যানেজেরিয়াল স্টাইলের মধ্যে অনেক রকমের স্টাইল দেখা যায়। যেমনঃ কেউ অনেক বেশি নমনীয় হতে পারেন, আবার কেউ কঠোর হতে পারেন। কেউ অনেক উৎসাহ দিতে পারেন, আবার কেউ বেশি সমালোচনা করতে পারেন। ফাহিম মাশরুরের মতে, আমাদের দেশের জন্য মাইক্রোম্যানেজ ম্যানেজেরিয়াল স্টাইল সবচে’ ভালো। অর্থাৎ, সব বিষয় গভীরভাবে পর্যালোচনা করে দেখতে হবে। কোম্পানির খুঁটিনাটি সমস্ত বিষয়ই ম্যানেজারকে জানতে হবে। সর্বোপরি বলা যায়, সব বিষয় নিয়েই ম্যানেজারকে অবগত থাকতে হবে। তবে ম্যানেজার বলে কর্মীদের উপর শুধু অধিকার খাঁটালেই হবে না, বরং তাদের সাথে সহমর্মিতার সম্পর্ক বজায় রাখতে হবে। কথা দ্বারা তাদের প্রভাবিত করতে হবে, উৎসাহিত করতে হবে।

ম্যানেজেরিয়াল কনসেপ্ট এবং লিডারশিপের মধ্যে পার্থক্য

মূলত ম্যানেজারদের একটি নির্দিষ্ট স্ট্রাকচারের মধ্যে থাকতে হয়। তার গণ্ডি শুধুমাত্র তার কোম্পানির মধ্যেই সীমাবদ্ধ থাকে। তার পরিধি নির্ধারিত। কিন্তু যারা অন্যদের লিড দেয়, তাদের পরিধি নির্ধারিত নয়, বরং তা সময়ের সাথে সাথে পরিবর্তনশীল। এই লিডারশিপ মূলত বৃহত্তর স্বার্থে ব্যবহৃত হয়ে থাকে। কারণ একজন সাধারণ লিডারের কাজ হল সকলকে সাথে নিয়ে এগিয়ে যাওয়া। অর্থাৎ, ম্যানেজার এবং লিডারশিপ একই ধারণা নয়।

বাংলাদেশে যেখানে ম্যানেজমেন্টের ঘাটতি রয়েছে  

দুর্ভাগ্যজনকভাবে, আমাদের দেশে পর্যাপ্ত স্কিলড মানুষ নেই, যাদের কাছে ম্যানেজেরিয়াল কনসেপ্টের ধারণাটি পরিষ্কার। ফলে দেখা যায়, আমাদের দেশের যেসব চাকরিতে এরকম স্কিলড মানুষের প্রয়োজন হয়, সেসব চাকরি আর দেশের মানুষের আওতায় থাকে না। চলে যায় বিদেশিদের কাছে।

আমাদের দেশের গার্মেন্টস শিল্প থেকে শুরু করে হোটেল এন্ড ট্যুরিজম শিল্প, গাড়ি শিল্প, জুতা শিল্প, রেস্টুরেন্ট শিল্প – সব জায়গাতেই লেগেছে ডিজিটাইলেজেশনের ছোঁয়া। আর এসব ডিজিটাল কাজ দেখা-শোনার জন্য যথেষ্ট স্কিলড ম্যানেজারের দরকার পরে। কিন্তু আমাদের দেশে নানা সুযোগ-সুবিধার অভাবে অনেক মানুষের পক্ষে এত স্কিলড হওয়া সম্ভবপর হয়ে উঠে না। এর ফলে দেখা যাচ্ছে, এসব ম্যানেজারের পদে অধীন হচ্ছে বিদেশি কোন ব্যক্তি।

এছাড়াও ছোটবেলা থেকেই আমাদের সমাজে বাচ্চাদের মাথায় ঢুকিয়ে দেওয়া হয় যে তাকে ডাক্তার বা ইঞ্জিনিয়ার হতে হবে, বিদেশে চলে যেতে হবে। কিন্তু কখনও কাউকে বলা হয় না, “তোমাকে কোনো কোম্পানির ম্যানেজার হতে হবে।“ ফলে দেখা যাচ্ছে, কেউ ম্যানেজার হওয়ার পথে পা-ই বাড়াচ্ছে না, নিজেকে স্কিলড করে তুলছে না। এরজন্য এ দেশে ম্যানেজারের আসনে বসার জন্য যোগ্য মানুষ খুব কমই তৈরি হচ্ছে। পাশাপাশি আমাদের দেশের ব্যবসায়িক প্রথাও এজন্য দায়ী। কারণ অনেক ক্ষেত্রেই দেখা যায়, আমাদের দেশে পারিবারিক ব্যবসা চলে আসছে। ফলে অনেক সময় যোগ্য না হয়েও অনেকেই পারিবারিক সূত্রেই ম্যানেজারের পদে বসছে। আর বর্তমানে বিদেশ চলে যাওয়ার হার এতই বেড়ে গিয়েছে যে বলাই যায় মেধা পাচার হচ্ছে। ফলে একরকম বিপদে পড়েই দেশের চাকরি ছেড়ে দিতে হচ্ছে বিদেশিদের হাতে।

 চাকরিপ্রার্থীদের জন্য পরামর্শ

আমাদের দেশে শিক্ষিত বেকারের সংখ্যা অনেক বেশি। এর কারণ, মানুষ যত শিক্ষিত হয়, তত তার সার্টিফিকেট লেভেল অনুযায়ী চাকরি খুঁজতে থাকে। যেমনঃ একজন অনার্স পাশ শিক্ষার্থী সহজেই উবারে চাকরি করতে চাবেনা, কিন্তু একজন মেট্রিক পাশ শিক্ষার্থী তা খুশি মনেই করবে। কিন্তু একজন অনার্স পাশ শিক্ষার্থী মনে করবে এ পেশায় যুক্ত হলে সমাজে তার মর্যাদা কমে যাবে। আসলে এরকম মানসিকতার পিছনে আমাদের সমাজব্যবস্থাও বহুগুণে দায়ী। বাইরের দেশে যেকোনো পেশাকেই সম্মানের সাথে দেখা হলেও আমাদের দেশে এখনও ভেদাভেদ করা হয়।

ফাহিম মাশরুরের ধারণা, ভবিষ্যতে আমাদের চাকরির বাজারে প্রতিযোগিতা আরো বাড়বে। আর এই প্রতিযোগিতায় টিকে থাকতে হলে উনি নিজেদেরকে এখন থেকেই প্রস্তুত হওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন। সময়ের সাথে নিজেদের আপডেটেড করতে বলেছেন। নিজেদের স্কিলস বাড়াতে বলেছেন। অর্থাৎ, এখন থেকেই ভবিষ্যতে নিজেদের এগিয়ে রাখার জন্য সমস্ত প্রস্ততি সম্পন্ন করতে বলেছেন।

ম্যানেজমেন্ট সংক্রান্ত বই পেতে রকমারি

 

rokomari

rokomari

Rokomari.com is now one of the leading e-commerce organizations in Bangladesh. It is indeed the biggest online bookshop or bookstore in Bangladesh that helps you save time and money.

Leave a Comment

Rokomari-blog-Logo.png
Join our mailing list and get the latest updates
Loading