ইংরেজি লেখায় ভুল কমানোর সবচেয়ে সহজ উপায়

ইংরেজি ভাষা শুদ্ধিকরণে অনলাইন টুলস-এর ব্যবহার
grammarly
ইংরেজি লেখায় হরহামেশাই আমাদের ভুল হয়।  এমন না যে ইংরেজি ব্যাকরণের সঠিক নিয়ম-কানুন জানি না বলেই আমরা সেই ভুলগুলো করে থাকি। অনেক ক্ষেত্রেই ব্যাকরণের ভালো নিয়ম-কানুন জানা থাকা সত্ত্বেও শুধুমাত্র অসতর্কতার কারণে আমরা ভুল করে বসি। ইংরেজি লেখায় ভুল হওয়াটা আমার দৃষ্টিতে মোটেই অস্বাভাবিক কিছু না। এরকম মনে হওয়ার পেছনের কারণ মূলত দুইটা। এক, মানুষ মাত্রই ভুলের ঊর্ধ্বে না। দুই, ইংরেজি আমাদের মাতৃভাষা না।
আমাদের মাতৃভাষা বাংলা লিখতে গিয়েই আমরা যে পরিমাণ ভুল করি তারচেয়ে ইংরেজিতে বেশি ভুল করাটাই স্বাভাবিক।
ভুল করা স্বাভাবিক হলেও ধারাবাহীকভাবে ভুল করে যাওয়াটা কোনো কাজের কথা না। আপনি ভুল করছেন কিন্তু সেখান থেকে শিক্ষা নিচ্ছেন না, আবার ভুল করছেন কিন্তু সেটা সংশোধনের কোনো চেষ্টা চালাচ্ছেন না – এই ব্যাপারগুলো মোটেই স্বাভাবিক না।
আচ্ছা, কেমন হয় যদি একটা অ্যাপ আপনার জরুরি কোনো ডকুমেন্ট লেখা শেষ হতেই বলে দিলো, “তোমার লেখায় এই এই ভুল হয়েছে। এগুলোর শুদ্ধ ব্যবহার হলো এই।”
আপনি সেসব সাজেশন্স দেখে খুব সহজেই ভুলগুলো সংশোধন করে ফেললেন। কেমন হয় যদি একটা অ্যাসাইনমেন্ট লেখা শেষ করতেই জেনে যান যে, আপনার অ্যাসাইনমেন্ট এই এই ব্যাকরণ, বানান ও চিহ্নের ব্যবহার ভুল হয়েছে। আপনি সেসব ভুল ঠিক করে তারপর স্যার অথবা জরুরি অন্য কাউকে পাঠালেন। নিশ্চয়ই অসাধারণ একটা ব্যাপার হয়, তাই না?
বলছিলাম চমৎকার অ্যাপ গ্র্যামারলির (Grammarly) কথা। এখন পর্যন্ত যতগুলো রাইটিং অ্যাসিসট্যান্ট অ্যাপ রয়েছে তারমধ্যে গ্র্যামারলি সেরা। গ্র্যামারলির দৈনিক সক্রিয় সদস্য সংখ্যা ১ কোটির ঊর্ধ্বে। গ্র্যামারলির এই জনপ্রিয়তার মূল কারণ হলো, এই অ্যাপটা অনেক বেশি ইউজার ফ্রেন্ডলি। এই অ্যাপ ব্যবহার করা যে কারো পক্ষেই সম্ভব। আলাদা কোনো টেকনিক্যাল এক্সপার্টিজ এর প্রয়োজন হয় না। ব্যবহার সহজ ছাড়াও গ্র্যামারলির জনপ্রিয়তার অন্য আরেকটা সঙ্গত কারণ হলো, এই অ্যাপটা অনেক বেশি নির্ভুল। হঠাৎ হঠাৎ দুয়েকটা ভুল সাজেশন দিলেও গ্র্যামারলি অধিকাংশ ক্ষেত্রেই একেবারে নির্ভুল সাজেশন দেয়। মাত্র কয়েকটা ক্লিকের মাধ্যমেই এই অ্যাপ ব্যবহার করে আপনার যেকোনো ধরণের লেখা ডকুমেন্টের ভুলগুলো সংশোধন করে নিতে পারবেন। গ্র্যামারলি ব্যবহার করে আপনি যেসব কাজসমূহ করতে পারবেন-

১. ব্যাকরণগত ভুল সংশোধন

গ্র্যামারলি নামকরণ দেখেই খুব সহজে ধারণা করা যায় এটা যে মূলত একটা ইংরেজি ব্যাকরণ সংশোধনের অ্যাপ। ভুল আর্টিকেল, প্রিপজিশন বা টেনসের ব্যবহার থেকে শুরু করে রিডানডেনসি, এডভার্ব ওভারইউজ, মডিফায়ারস ইত্যাদির ভুল ব্যবহারসহ প্রায় সবরকমের গ্র্যামাটিক্যাল ভুল গ্র্যামারলি শনাক্ত করতে পারে। শুধু শনাক্ত করেই এই অ্যাপটা ক্ষান্ত হয়ে পড়ে না। সাথে সাথে ভুলগুলো কেন ভুল সেটাও খুব পরিষ্কারভাবে এবং টু দ্য পয়েন্টে ব্যাখা করে। গ্র্যামারলির এসব ভুল সংশোধনী লেসন পড়তে পড়তে ক্রমান্বয়েই যে আপনি ইংরেজি লেখায় দক্ষ হতে শুরু করবেন সেটা আর বলার অপেক্ষা রাখে না।

২. বানান সংশোধন 

গ্র্যামারলির স্পেলিং চেকারটা অনেক ব্যাপক। গড়পড়তা ওয়ার্ড প্রসেসিং সফটওয়্যারগুলোর চেয়ে শক্তিশালী। আমি নিজে পরীক্ষা করে দেখেছি এমন অনেক বানান আছে যেগুলো ওয়ার্ড প্রসেসিং সফটওয়ারগুলোতে ভুল দেখায়নি কিন্তু গ্র্যামারলিতে ভুল দেখিয়েছে। বানান ভুল সংশোধন ছাড়াও কখন color লিখবেন আর কখন Colour, বা ধরেন কখন analyze হবে আর কখন analyse – এই জিনিসগুলোও গ্র্যামারলি আপনাকে বলে দেবে।

৩. যতি চিহ্নের সঠিক ব্যবহার

গ্র্যামারলি শুধু ইংরেজি ব্যাকরণ ও বানান সংশোধনের মধ্যেই সীমাবদ্ধ নয়। চমৎকার এই অ্যাপটি ব্যবহার করে আপনি আপনার লেখায় থাকা যতি চিহ্ন বা Punctuation (কমা, ডট, কোলন, সেমিকোলন ইত্যাদি) এর ভুলগুলোও সংশোধন করে নিতে পারবেন।

৪. প্লেইজারিজম (Plagiarism) চেকার

আপনার ডকুমেন্টে থাকা ইচ্ছাকৃত বা অনিচ্ছাকৃত প্লেইজারিজম গ্র্যামারলি খুব সহজেই শনাক্ত করে দেবে। তবে এই ফিচারটা কিন্তু ফ্রি ভার্সনে পাওয়া যাবে না। এটা প্রিমিয়াম ভার্সনের ব্যবহারকারীদের জন্য।

৫. রাইটিং স্টাইল

গ্র্যামারলি আপনার লেখারস্টাইল সম্পর্কে মানুষের কাছাকাছি পর্যায়ের টিপস এবং সাজেশনস দেবে। আপনার লেখারcorrectness, clarity, engagement, এবং delivery এর উপর ভিত্তি করে ওভারঅল ১০০ রেটিং স্কেলে স্কোর দেখাবে।

৬. আরো অনেককিছু 

উপরিউক্ত কাজসমূহ ছাড়াও গ্র্যামারলি অ্যাপ ব্যবহার করে আপনি আরো বেশকিছু কাজ করতে পারবেন। গ্র্যামারলির সেট গোলস ফিচারটা ব্যবহার করে চাইলে আপনার লেখাটাকে নির্দিষ্ট ডোমেইনের (একাডেমিক, বিজনেস, ক্রিয়েটিভ ইত্যাদি) মানুষদের উপযোগী করে তৈরি করতে পারবেন। লেখাটাকে পুরোপুরি ইনফর্মাল আবার পুরোপুরি ফর্মালও করে নিতে পারবেন। ডেলিভারি স্টাইলটাকে অপটিমিস্টিক, জয়ফুল, কনফিডেন্ট ইত্যাদি টোনে নিয়ে যেতে পারবেন। মোটকথা, গ্র্যামারলি শুধু গ্র্যামার সংশোধনের অ্যাপই না, এর বাইরেও অনেককিছু।
এতক্ষণ গ্র্যামারলি ব্যবহার করে আপনি কী কী কাজ করতে পারবেন সেটা বললাম। এখন বলব আপনি আপনার কম্পিউটার বা স্মার্টফোনে কীভাবে গ্র্যমারলি অ্যাপটা ব্যবহার করবেন।
গ্র্যামারলি ব্যবহার করার বেশ কয়েকটি উপায় আছে। আপনি আপনার সুবিধামতো যেকোনো এক বা একাধিক পদ্ধতিতে এই অ্যাপ ব্যবহার করতে পারবেন। পদ্ধতিগুলো হলো-

১. গ্র্যামারলি ওয়েবটুল 

www.grammarly.com এই ওয়েবসাইটে ভিজিট করে সাইন ইন ইন করলেই একটা নতুন পেজ আসবে। এই পেজ থেকে নিউ অপশনটা সিলেক্ট করলেই একটা ব্ল্যাংক পেজ ওপেন হবে। আপনার লেখাটা কপি করে এই খালি পেজটাতে পেস্ট করে কয়েক মুহূর্ত অপেক্ষা করুন। গ্র্যামারলি তার জাদু দেখাতে শুরু করবে।
আপনার লিখিত ডকুমেন্টটা পূর্ণাঙ্গ এবং আকারে বড়ো হলে কপি-পেস্টের বদলে ডকুমেন্টটা আপলোড অপশনে ক্লিক করে গ্র্যামারলির ওয়েবটুলে আপলোড করে ফেলুন। গ্র্যামারলি আপনার আপলোডকৃত ডকুমেন্টটাকে বিশ্লেষণ করে ভুলগুলো দেখানো শুরু করবে।
এছাড়াও আপনি চাইলে সরাসরি গ্র্যামারলির ওয়েবসাইটেই লিখতে পারবেন। লিখার সময়েই গ্র্যামারলি আপনার ভুলগুলো দেখাবে।

২. ডেস্কটপ অ্যাপ 

বারবার ব্রাউজার থেকে খুঁজে গ্র্যমারলির ওয়েবটুল ব্যবহার করাটা আপনার কাছে বিরক্তিকর মনে হলে চিন্তার কোনো কারণ নেই। খুব সহজেই আপনি গ্র্যমারলির ডেস্কটপ অ্যাপটা আপনার কম্পিউটারে ইন্সটল করে নিতে পারবেন। ডেস্কটপ অ্যাপ ওয়েবটুলের মতোই কাজ করে।

৩. মাইক্রোসফট ওয়ার্ড অ্যাড-ইন

আপনি চাইলে সরাসরি মাইক্রোসফট ওয়ার্ডে অ্যাড-ইন হিসেবে গ্র্যামারলি ব্যবহার করতে পারবেন। অ্যাড-ইন পেজ থেকে নির্দেশমতো গ্র্যামারলি অ্যাড করে নেওয়ার পর থেকে মাইক্রোসফট ওয়ার্ডে লেখার সময়েই প্রয়োজনীয় সংশোধনী, সাজেশনস, টিপস ইত্যাদি দেখতে পারবেন। তবে হ্যাঁ, অ্যাড-ইন ব্যবহার করতে হলে আপনাকে কিন্তু অনলাইনে কানেক্টেড থাকতে হবে।

৪. ব্রাউজার এক্সটেনশন

অন্যান্য আরো আট-দশটা এক্সটেনশনের মতো চাইলে আপনি গ্র্যামারলিও ব্রাউজার এক্সটেনশন হিসেবে ব্যবহার করতে পারেবন। আমার কাছে ব্রাউজার এক্সটেনশন হিসেবে গ্র্যামারলি ব্যবহার করাটা সবচেয়ে সহজ মনে হয়।

৫. স্মার্টফোনের কী-বোর্ড হিসেবে 

প্লে স্টোর কিংবা অ্যাপ স্টোরে গ্র্যামারলির খুব সুন্দর একটা কী-বোর্ড অ্যাপ আছে। এই কী-বোর্ড অ্যাপটা ইন্সটল করে চাইলে স্মার্টফোনেও খুব সহজেই গ্র্যামারলি ব্যবহার করতে পারবেন।
তাহলে আর দেরি কিসের? এখন থেকে আপনিও গ্র্যামারলি ব্যবহার শুরু করে দিন। মাত্র কিছুদিন ব্যবহার করলেই আশা করি টের পেয়ে যাবেন কী যে দরকারি একটা জিনিস এই অ্যাপ্লিকেশনটা!

সহজে ইংরেজি শিক্ষার বইগুলো দেখুন 

 

Leave a Comment

You May Also Like This Article

Rokomari-blog-Logo.png
Join our mailing list and get the latest updates
Loading